Friday, October 7, 2022
HomeCricketমোহাম্মদ মিথুন হতে পারতো ওডিআইতে আস্থার প্রতীক

মোহাম্মদ মিথুন হতে পারতো ওডিআইতে আস্থার প্রতীক

মিথুনের টেস্ট আর টি-টুয়ান্টি পারফরম্যান্স যথেষ্ট খারাপ ওগুলো নিয়ে কথা বলতে চাই না,,আমি এখন কথা বলবো তার ওডিআই ক্যারিয়ার নিয়ে

সৌম্য,লিটন দলে নিয়মিত সুযোগ পাইছে,কিন্তু মিথুন কি নিয়মিত সুযোগ পাইছে!!মিথুনের ওডিআই অভিষেক ২০১৪ তে,,যেই ম্যাচে বাংলাদেশ ৫৮ রানে অলআউট হইছিলো ঐ ম্যাচের টপ স্কোরার ছিল মিথুন(২৬),, কিন্তু অজানা কারনে সে দল থেকে বাদ পড়ে যায় তখন কেউ বিন্দু মাত্র প্রতিবাদ করে নি কারন সে লর্ড মিথুন,,তারপর ব্যাক করলেন ৪ বছর পর এশিয়া কাপে সুযোগ পেয়েই যেন আস্থার প্রতিদান দিলেন দলের বিপর্যয়ের মুখে পাকিস্তান আর শ্রীলঙ্কার সাথে ২ টি ৫০+ ইনিংস খেলেন এবং দলকে এশিয়া কাপের ফাইনালে তোলেন তখনও হাইপ তোলা হয় নি কারন সে লর্ড মিথুন,,তারপর আসলো জিম্বাবুয়ে সিরিজ সেখানে তার স্কোর ছিল ৩৭,২৪*,৭*,,একটা প্লেয়ার ফর্মে থাকার পর সে বাদ পড়ে পরবর্তী ওয়েস্টইন্ডিজ সিরিজে,,তখনও কোনো প্রতিবাদ হয় নি কারন সে লর্ড মিথুন,,তারপর সুযোগ পেলেন পরবর্তী নিউজিল্যান্ড সিরিজে,সেখানে তো তিনি আরো ভয়ংকর হয়ে উঠলেন ২ ম্যাচে ২ টা ৫০+ ইনিংস, আর শেষ ম্যাচে ইনজুরির কারনে খেলেন নি,,তখনও হাইপ তোলা হয় নি কারন সে লর্ড মিথুন,,পরবর্তীতে আসে আয়ারল্যান্ডের মাটিতে ট্রাইনেশন সিরিজ এতো আগুন ফর্মে থাকা প্লেয়ার সুযোগ পেলেন মাত্র ৩ ম্যাচে,, সেখানে তার স্কোর ছিল ৪৩,১৭ আরেক ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পান নি,, তরপর শুরু হলো ওয়াল্ড কাপ মিশন সেখানে তিনি মাত্র ৩ ম্যাচে সুযোগ পান সেখানে তার স্কোর ২১,২৬,০,, তারপর শুরু হলো শ্রীলঙ্কা সিরিজে সেখানে সাকিব না থাকায় সে ওয়ানডাউন করে, ওয়ান ডাউনের চাপ সামলাতে না পেরে তিনি ৩ ম্যাচে করেন ১০,১২,৪,,এতোদিনে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মারাত্মক ট্রলের শিকার,, ৮০% মানুষই ট্রল করা শুরু করলো,, তারপর সুযোগ পেলেন জিম্বাবুয়ে সিরিজে সেখানে তার স্কোর ছিল ৫০,৩২*,শেষ ম্যাচে ব্যাটিয়ের সুযোগ পান নি,,এমন ফর্মে থাকার পরও পরবর্তী ওয়েস্টইন্ডিজ সিরিজে খেলার সুযোগই পান নি,,তারপর আসলো নিউজিল্যান্ড সিরিজ সেখানে ৩ ম্যাচে তার রান ছিল ৯(অপ্রত্যাশিত রান আউট বোলিং ক্রিজে),৭৩,৬ শেষ ম্যাচে ডট দেওয়ায় শুরু হয়ে গেল ট্রল মারাত্মক ট্রল,যে ট্রল সব কিছুর মাত্রা ছড়ালো মিথুনও মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়লো যার ফলে শ্রীলঙ্কার সাথে মাত্র ১ ম্যাচে সুযোগ পান সেখানে তিনি ০ রানে আউট হন,,ট্রলকারীরা আরো সুযোগ ফেল শুরু করলো মারাত্নক ট্রল অনেকে ফ্যামিলি এটাকও শুরু করলো,, এ সময় তিনি খুব ভেঙ্গে পড়েন ৯০% মানুষ ট্রল করে,প্রায় অবসর নিতে বাধ্য হবেন এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হলো,, তারপর সুযোগ ফেলেন জিম্বাবুয়ে সিরিজে ৩ ম্যাচে সেখানে স্কোর ছিল ১৯,২,৩০,,মানে তার ক্যারিয়ারকে শেষের পথে নিয়ে গেল,, একটা প্লেয়ারকে কীভাবে হাতে ধরে নষ্ট করতে হয় মোহাম্মদ মিথুন তার জ্বলন্ত উদাহরন,,এই জন্য বিসিবিরও দায় আছে তারা মিথুনকে টি-টোয়েন্টি টেস্টেও সুযোগ দিল সেখানে সে ব্যার্থ হওয়ায় খেলা না বোঝা ট্রলকারীরা তাকে ওডিআই থেকেও বাদ দেওয়ার জন্য ট্রল করে,অথচ মোহাম্মদ মিথুন হতে পারতো ওডিআইতে আস্থার প্রতীক

আরও পড়ুনঃ এক-দশক-পর-বাংলার-ঘরে-ফিরছে জেমি সিডন্স

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments