Friday, October 7, 2022
HomeStoryবাল্যবিবাহ একটা ব্যাধি

বাল্যবিবাহ একটা ব্যাধি

                          বাল্যবিবাহ একটা ব্যাধি

বাল্যবিবাহ একটা ব্যাধির মত । এর ভয়াল থাবা থেকে সারাবিশ্ব যখন ঘুরে দাড়াতে চায় তখন বিশ্বের আনুন্নত দেশগুলোর গরিব অভিভাবকরা যখন তাদের ছেলেমেয়েদের জন্য কোন পাত্র বা পাত্রীর বিবহের সমন্ধ আসে তখন তা এটাকে বিধাতার আশিবাদ মনে করে তাদের সব কিছু দিয়ে তাদের ছেলে মেয়েদের বিবহ সপন্ন করে ।

সম্প্রতি সময়ে বিশ্বের একটা ছোট্র দেশ উন্নানশীল দেশ ।নাম তার বাংলাদেশ । বিশ্বের মহামারি কালিন সমায়ে সারা বিশ্ব যখন টালমাটল তখন করোনা কালিন সমায়ে দীঘ্রদিন বাংলাদেশে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্টান বন্ধ থাকায় অনেক অভিভাবক তাদের ছেলেমেয়েদের নিয়ে শ্বংকিত ।তারা তাদের সন্তানদের ভবিযৎ নিয়ে চিন্তত ।এরই মধ্যে শিক্ষা প্রতিষ্টান খুলে দেওয়া হয়েছে ।কিন্তু বিদ্যলয়ে শিক্ষাথীদের উপস্থিতি অনেক কম ।

কারন খুজতে দেখা গেল করোনা কালীন সময় দীঘ দিন স্কূল বন্ধ থাকায় অনেক শিক্ষাাথী ঝরে পড়েছে ।এমন একটি ঘটনা ঘটেছে আমতলির বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ।এই উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্র।য় 10000 (দশ হাজার) শিক্ষাথী ঝরে পড়লো । শিক্ষকরা ছাত্রছাত্রীদের বাড়িতে খোজ নিয়ে দেখে মেয়েরা বাল্যবিবাহের শিকার । আর ছেলেরা অভাবের সংসারের হাল ধরতে বিভান্ন কাজেকমে লেগে গেছে ।

শিক্ষকরা ঝরে পড়া শিক্ষাথীদের খোজাখুজি করছে ।কিন্তু খোজ মিলবে কোথায় ।তারাতো বাল্যবিবাহের শিকার হয়ে ঘরসংসার সামলাচ্ছে ।আবার কেউবা দীঘদিন স্কুল বন্ধ থাকায় কোমল মতি শিশুদের মনমানসিকতা স্কুল বিমুখ হয়ে গেছে । তারা এখন ব্যাস্ত মোবাইলের ফ্রী ফায়ার অথবা পাপজী মত গেম নিয়ে ।বই খাতা নিয়ে নয় ।

মরণব্যাধী করোনার কারনে আজ আামার নিজের সন্তান বই খাতা ফেলে মোবাইলের নিশাই মত্য ।গত 12.09.21 তারিখে স্কুল খুললেও আজও বই ধরাতে পারচ্ছিনা ।আমার মত সমস্ত অবিভাকরা নিজেদের ছেলেমেয়ে নিয়ে চিন্তিত ।কিভাবে তাদের স্বাবাভিক জিবনে ফিরিয়ে আনা যায় ।এই নেশা যে বাচ্ছাদের করোনার চেয়ে কোন অংশে কম ক্ষতি করে দেয়নি ।

একাবিংশ শতাব্দীতে এসেএই করোনার কারনে আজ আমরা বাল্যবিবহের মত অপরাধ করেছি ।যেখানে সারা বিশ্ব বাল্যবিবাহ বন্ধের জন্য এক সাথে কাজ করছেসেখানে বাংলাদেশে কমবেশি সবখানে বাল্যবিবাহ হয়ে চলেছে ।

এখন বিশ্ব অনেকটা স্বাবাভিক হয়ে এসেছে ।স্কুলও খুলে দিয়েছে ।তাই আমাদের উচিৎ বাল্যবিবাহ বন্ধ করে বাচ্ছাদের স্কুলের দিখে মনোনিবেশ করিয়ে বই এর প্রতি মনোযোগি করাতে হবে ।তবেই সম্ভব একটা সঠিক সোনার বাংলা গড়া ।

আরও পড়ুনঃডাবলুর করোনা কালীন জীবনি

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments